NATIONAL-DEFENCE-ACADEMYCentral Government UPSC 

আর্মি, নেভি, এয়ারফোর্সে ৪১৩

বাছাই হবে এনডিএ অ্যান্ড এনএ পরীক্ষার মাধ্যমে

কাজকেরিয়ার অনলাইন নিউজ ডেস্ক: কেবলমাত্র উচ্চমাধ্যমিক পাশ অবিবাহিত ভারতীয় তরুণদের থেকে ১৪৬তম কোর্সে ন্যাশনাল ডিফেন্স অ্যাকাডেমি এবং ১০৮তম কোর্সে ইন্ডিয়ান ন্যাভাল অ্যাকাডেমিতে ট্রেনিং দিয়ে ৪১৩ জনকে নিচ্ছে ইন্ডিয়ান আর্মি, নেভি এবং এয়ারফোর্সে। এই কোর্সটি শুরু হবে ২০২১ সালের ২ জুলাই থেকে। নিয়োগের জন্য ন্যাশনাল ডিফেন্স অ্যাকাডেমি অ্যান্ড ন্যাভাল অ্যাকাডেমি এক্সামিনেশন (২) ২০২০-র মাধ্যমে প্রার্থীবাছাই করবে ইউনিয়ন পাবলিক সার্ভিস কমিশন। সর্বভারতীয় এই পরীক্ষা হবে ৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ তারিখে। যে কোনও ভারতীয় নাগরিক নিচের মতো যোগ্যতা থাকলে আবেদন করতে পারেন।

উল্লেখ্য, এনডিএ অ্যান্ড এনএ (১) পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল ১৯-৪-২০২০ তারিখে। তবে কোভিড-১৯ পরিস্থিতির জন্য তা বাতিল করা হয়েছে। এখন এনডিএ অ্যান্ড এনএ (১) এবং এনডিএ অ্যান্ড এনএ (২) উভয় পরীক্ষা একটি কমন টেস্টের মাধ্যমে হবে। এই উভয় পরীক্ষা হবে ৬ সেপ্টেম্বর।

ন্যাশনাল ডিফেন্স অ্যাকাডেমিতে: মোট শূন্যপদ ৩৭০টি (এরমধ্যে থেকে আর্মিতে শূন্যপদ ২০৮টি, নেভিতে শূন্যপদ ৪২টি এবং এয়ারফোর্সে শূন্যপদ ১২০টি)। এয়ারফোর্সের ১২০টি শূন্যপদের মধ্যে থেকে ২৮টি শূন্যপদ গ্রাউন্ড ডিউটিজের জন্য সংরক্ষিত আছে। অন্যদিকে ইন্ডিয়ান ন্যাভাল অ্যাকাডেমি (১০+২ ক্যাডেট এন্ট্রি স্কিমে): মোট শূন্যপদ ৪৩টি।

ন্যাশনাল ডিফেন্স একাডেমির আর্মি উইংয়ের ক্ষেত্রে — (১০+২ পদ্ধতিতে) যে কোনও শাখার উচ্চমাধ্যমিক/ সমতুল পাশ প্রার্থীরা আবেদন করতে পারেন। ন্যাশনাল ডিফেন্স অ্যাকাডেমির এয়ারফোর্স, ন্যাভাল ব্রাঞ্চ এবং ন্যাভাল অ্যাকাডেমির ১০+২ ক্যাডেট এন্ট্রির ক্ষেত্রে: (১০+২ পদ্ধতিতে) ফিজিক্স, কেমিস্ট্রি ও ম্যাথমেটিক্স বিষয় নিয়ে উচ্চমাধ্যমিক পাশ প্রার্থীরা আবেদন করতে পারেন। যাঁরা এবছর উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছে বা দেবেন, তাঁরাও শর্তসাপেক্ষে আবেদনের যোগ্য।

জন্মতারিখ হতে হবে ২-১-২০০২ থেকে ১-১-২০০৫-এর মধ্যে। শারীরিক মাপজোক সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পাবেন নিচে বলা ওয়েবসাইটে।

শুরুতে ৩ বছরের ট্রেনিং। ৩টি সার্ভিসের ক্ষেত্রেই আড়াই বছরের ট্রেনিং একই। সকল ট্রেনিং শেষে দিল্লির জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রি পাবেন। আর্মি ক্যাডেটের ক্ষেত্রে পাবেন বিএসসি/ বিএসসি (কম্পিউটার)/ বিএ। ন্যাভাল ক্যাডেটের ক্ষেত্রে পাবেন বি টেক ডিগ্রি এবং এয়ারফোর্স ক্যাডেটের ক্ষেত্রে পাবেন বি টেক/ বিএসসি/ বিএসসি (কম্পিউটার) ডিগ্রি।

ট্রেনিং চলাকালীন স্টাইপেন্ড মাসে ৫৬,১০০ টাকা। সফল ট্রেনিং শেষে নিয়োগ হলে মূল মাইনে লেভেল-১০ অনুযায়ী। সঙ্গে মিলিটারি সার্ভিস পে ১৫,৫০০ টাকা ও অন্যান্য ভাতা। সর্বাধিক মেজর জেনারেল রাঙ্ক পর্যন্ত পদোন্নতির সুযোগ রয়েছে। তখন মূল মাইনে ১,৪৪,২০০ – ২,১৮,২০০ টাকা।

প্রার্থীবাছাই হলে লিখিত পরীক্ষা, ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে। লিখিত পরীক্ষায় থাকবে ৩০০ নম্বরের ম্যাথমেটিক্স (কোড-১) (উত্তরের জন্য সময় আড়াই ঘন্টা), ৬০০ নম্বরের জেনারেল এবিলিটি টেস্ট (কোড-২) (উত্তরের জন্য সময় আড়াই ঘন্টা) এবং ৯০০ নম্বরের এসএসবি টেস্ট/ ইন্টারভিউ। বিস্তারিত সিলেবাস সম্পর্কে জানতে পারবেন নিচে বলা ওয়েবসাইটে।

নেগেটিভ মার্কিং আছে। প্রতি ভুল উত্তরের জন্য ০.৩৩ নম্বর কাটা যাবে। পরীক্ষা হবে কলকাতা, আগরতলা, ভোপাল, চন্ডীগড়, কটক, দিশপুর, গ্যাংটক, ইম্ফল, ইটানগর, জোরহাট, কোহিমা, পোর্ট ব্লেয়ার, রাঁচি, সম্বলপুর, শিলং, শিমলা সহ দেশের অন্যান্য পরীক্ষা কেন্দ্রে।

আবেদন করবেন অনলাইন https://www.upsconline.nic.in ওয়েবসাইটের মাধ্যমে, ৬ জুলাইয়ের মধ্যে। অনলাইন আবেদন করতে বসার আগে নিজের পাসপোর্ট মাপের ছবি ও সই (২০ থেকে ৩০০ কেবি সাইজের মধ্যে) এবং কোনও সচিত্র পরিচয় পত্র (পিডিএফ ফর্ম্যাটে ২০ থেকে ৩০০ কেবি সাইজের মধ্যে) স্ক্যান করে রাখবেন। দরখাস্ত করার সময় আপলোড করতে হবে।

আবেদনের ফি বাবদ দিতে হবে ১০০ টাকা। ফি জমা দেবেন অনলাইনে ডেবিট/ ক্রেডিট/ নেট ব্যাঙ্কিংয়ের মাধ্যমে। এছাড়া সিস্টেম জেনারেটেড রেজিস্ট্রেশন স্লিপের মাধ্যমে স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার যে কোনও ব্রাঞ্চে নগদেও এই ফি জমা করতে পারেন ৫ জুলাইয়ের মধ্যে। তফশিলিদের এই ফি দিতে হবে না। এবার সিস্টেম জেনারেটেড অ্যাপ্লিকেশন ফর্মের প্রিন্ট নিয়ে নিজের কাছে রাখবেন। পরে প্রয়োজন হবে। এই নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি নং: 08/2020-NDA-II. আরও বিস্তারিত জানতে পারবেন http://upsc.gov.in ওয়েবসাইটে।

পিডিএফ ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন: এখানে

অনলাইন আবেদন করুন– পার্ট-১ রেজিস্ট্রেশন ।। পার্ট-২ রেজিস্ট্রেশন ।।

Related posts

Leave a Comment