FDDIEducation Alerts Exam Preparation Knowledge Update 

৩,২৫৮ জনকে ডিজাইন ও ফ্যাশানের ব্যাচেলর এবং মাস্টার ডিগ্রি কোর্স ভর্তি নিচ্ছে

ফুটওয়্যার ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটে

কাজকেরিয়ার অনলাইন নিউজ ডেস্ক: ডিজাইন ও ফ্যাশানের ব্যাচেলর এবং মাস্টার ডিগ্রি কোর্সে ২,৯৭০ এবং এন আর আই/ ইন্ডাস্ট্রি স্পনসর কোটায় ২৮৮ জনকে ভর্তি নিচ্ছে ফুটওয়্যার ডিজাইন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউটে। প্রার্থীবাছাই হবে অল ইন্ডিয়া সিলেকশন টেস্টের মাধ্যমে।

ব্যাচেলর কোর্স করানো হবে এইসব বিষয়ে– ব্যাচেলর অফ ডিজাইন (বি ডেস): ফুটওয়্যার ডিজাইন অ্যান্ড প্রোডাকশন (FDP), লেদার গুডস অ্যান্ড অ্যাক্সেসারিজ (LGAD), ফ্যাশন ডিজাইন (FD)। এই কোর্সগুলির মেয়াদ ৪ বছর (৮টি সেমিস্টার)। ব্যাচেলর অফ বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (বিবিএ): রিটেল এন্ড ফ্যাশন মার্চেন্ডাইস (RFM)। এই কোর্সটির মেয়াদ ৩ বছর (৬টি সেমিস্টার)।

মাস্টার ডিগ্রি করানো হবে এইসব বিষয়ে– মাস্টার অফ ডিজাইন (এম ডেস): ফুটওয়্যার ডিজাইন অ্যান্ড প্রোডাকশন (FDP)। এই কোর্সটির মেয়াদ ২ বছর (৪টি সেমিস্টার)। মাস্টার অফ বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এমবিএ): রিটেল এন্ড ফ্যাশন মার্চেন্ডাইস (RFM)। এই কোর্সটির মেয়াদ ২ বছর (৪টি সেমিস্টার)। কোর্সগুলি পড়ানো হবে নয়ডা, চেন্নাই, কলকাতা, ফুরসৎগঞ্জ, রোহতক, হায়দরাবাদ, যোধপুর, চন্ডীগড়, চিন্দওয়াড়া, আঙ্কেলেশ্বর, গুনা ও পাটনার বিভিন্ন ক্যাম্পাসগুলিতে।

ক্যাম্পাস অনুযায়ী আসন সংখ্যাগুলি হল– (১) নয়ডায়: মোট আসন সংখ্যা ৪৬০টি। (২) চেন্নাই: মোট আসন সংখ্যা ৩০০টি। (৩) কলকাতায়: মোট আসন সংখ্যা ২৫০টি। (৪) ফুরসৎগঞ্জে: মোট আসন সংখ্যা ২০০টি। (৫) রোহতকে: মোট আসন সংখ্যা ২০০টি। (৬) হায়দরাবাদে: মোট আসন সংখ্যা ৩৪৫টি। (৭) যোধপুরে: মোট আসন সংখ্যা ১৭৫টি। (৮) চন্ডীগড়ে: মোট আসন সংখ্যা ৩৩০টি। (৯) চিন্দওয়াড়ায়: মোট আসন সংখ্যা ১২০টি। (১০) আঙ্কেলেশ্বরে: মোট আসন সংখ্যা ১৫০টি। (১১) গুনায়: মোট আসন সংখ্যা ১২০টি। (১২) পাটনায়: মোট আসন সংখ্যা ৩৪৫টি।

ব্যাচেলর ডিগ্রি প্রোগ্রামার ক্ষেত্রে— যে কোনও শাখার উচ্চমাধ্যমিক পাশ প্রার্থীরা অথবা অল ইন্ডিয়া কাউন্সিল ফর টেকনিক্যাল এডুকেশন স্বীকৃত ৩ বছরের পুরো সময়ের ডিপ্লোমাধারীরা আবেদন করতে পারেন। বয়স হতে হবে ১-৭-২০২০ তারিখের হিসেবে ২৫ বছরের মধ্যে।

ফুটওয়্যার ডিজাইন অ্যান্ড প্রোডাকশনের মাস্টার অফ ডিজাইনের ক্ষেত্রে– ফুটওয়্যার/ লেদার গুডস/ ডিজাইন/ ফ্যাশন/ ফাইন আর্টস/ আর্কিটেকচার/ ইঞ্জিনিয়ারিং/ প্রোডাকশন/ টেকনোলজির ব্যাচেলর ডিগ্রিধারীরা আবেদন করতে পারেন। রিটেল এন্ড ফ্যাশন মার্চেন্ডাইসে মাস্টার অফ বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের ক্ষেত্রে– যে কোনও শাখার ব্যাচেলর ডিগ্রিধারীরা আবেদন করতে পারেন। মাস্টার ডিগ্রির ক্ষেত্রে বয়সের কোনও বাধ্যবাধকতা নেই।

উভয় ক্ষেত্রেই যাঁরা চূড়ান্ত বর্ষের পরীক্ষা দিয়েছেন কিন্তু ফলপ্রকাশ হয়নি, তাঁরাও ব্যাচেলর কোর্সে আবেদন করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে তাঁরা প্রভিশনাল অ্যাডমিশন পাবেন। তাঁদের ক্ষেত্রে ৩০ সেপ্টেম্বরের আগে পাশ করার প্রমাণপত্র দাখিল করতে হবে। তবে এমবিএ প্রোগ্রামে ভর্তির ক্ষেত্রে প্রার্থীদের ম্যানেজমেন্ট অ্যাপ্টিটিউট টেস্ট (ম্যাট) পাশ করে থাকতে হবে।

কোর্স ফি: আন্ডার গ্র্যাজুয়েট কোর্সের ক্ষেত্রে– নয়ডা ও হায়দরাবাদ ক্যাম্পাসে: প্রথম সেমিস্টারে ১,১০,৮০০ টাকা, দ্বিতীয় সেমিস্টারে ৮৭,০০০ টাকা, তৃতীয় সেমিস্টারে ৯৯,২০০ টাকা, চতুর্থ সেমিস্টারে ৯৫,০০০ টাকা, পঞ্চম সেমিস্টারে ১,০৮,৫০০ টাকা, ষষ্ঠ সেমিস্টারে ১,০৩,৮০০ টাকা, সপ্তম সেমিস্টারে ১,১৮,৭০০ টাকা এবং অষ্টম সেমিস্টারে ১,১৩,৫০০ টাকা। এছাড়া (মেস ছাড়া) হোস্টেল ফি নয়ডা ও হায়দরাবাদ ক্যাম্পাসের ক্ষেত্রে প্রতি সেমিস্টারে ২৪,০০০ টাকা। বাকি ক্যাম্পাসে: প্রথম সেমিস্টারে ৮৭,৮০০ টাকা, দ্বিতীয় সেমিস্টারে ৬৪,০০০ টাকা, তৃতীয় সেমিস্টারে ৭৩,৯০০ টাকা, চতুর্থ সেমিস্টারে ৬৯,৭০০ টাকা, পঞ্চম সেমিস্টারে ৮০,৭০০ টাকা, ষষ্ঠ সেমিস্টারে ৭৬,০০০ টাকা, সপ্তম সেমিস্টারে ৮৮,১০০ টাকা এবং অষ্টম সেমিস্টারে ৮২,৯০০ টাকা। এছাড়া (মেস ছাড়া) হোস্টেল ফি প্রতি সেমিস্টারে ১৮,০০০ টাকা।

পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কোর্সের ক্ষেত্রে– নয়ডা ও হায়দরাবাদ ক্যাম্পাসে: প্রথম সেমিস্টারে ১,৪০,৮০০ টাকা, দ্বিতীয় সেমিস্টারে ১,১৭,০০০ টাকা, তৃতীয় সেমিস্টারে ১,৩২,২০০ টাকা এবং চতুর্থ সেমিস্টারে ১,২৮,০০০ টাকা। এছাড়া (মেস ছাড়া) হোস্টেল ফি নয়ডা ও হায়দরাবাদ ক্যাম্পাসের ক্ষেত্রে প্রতি সেমিস্টারে ২৪,০০০ টাকা। বাকি ক্যাম্পাসে: প্রথম সেমিস্টারে ১,২০,৮০০ টাকা, দ্বিতীয় সেমিস্টারে ৯৭,০০০ টাকা, তৃতীয় সেমিস্টারে ১,১০,২০০ টাকা, চতুর্থ সেমিস্টারে ১,০৬,০০০ টাকা। এছাড়া (মেস ছাড়া) হোস্টেল ফি প্রতি সেমিস্টারে ১৮,০০০ টাকা।

যাঁরা নির্বাচিত হবেন তাঁদের কাউন্সিলিংয়ের সময় বা ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে ২৫,০০০ টাকা দিয়ে আসন সংরক্ষণ করতে হবে। ফি পেমেন্টের পর নির্বাচিত প্রার্থীরা ১৬-১৭ এপ্রিল পর্যন্ত অনলাইন আবেদনপত্রে ভুল সংশোধন করতে পারবেন।

প্রার্থীবাছাই হবে অল ইন্ডিয়া সিলেকশন টেস্টের মাধ্যমে। ব্যাচেলর ডিগ্রি প্রোগ্রামার ক্ষেত্রে মোট ২০০ নম্বরের পরীক্ষায় থাকবে ৪টি সেকশন। প্রথম সেকশনে থাকবে ৫০ নম্বরের কোয়ান্টিটেটিভ অ্যাপ্টিটিউট, দ্বিতীয় সেকশনে থাকবে ৫০ নম্বরের ইংলিশ (২০ নম্বরের কম্প্রিহেনশন, ৩০ নম্বরের গ্রামার), তৃতীয় সেকশনে থাকবে ৫০ নম্বরের জেনারেল অ্যাওয়ার্নেস এবং চতুর্থ সেকশনে থাকবে ৩০ নম্বরের বিজনেস এবং ২০ নম্বরের অ্যাপ্টিটিউট টেস্ট।

মাস্টার ডিগ্রি প্রোগ্রামার ক্ষেত্রে মোট ২০০ নম্বরের পরীক্ষায় থাকবে ৪টি সেকশন। প্রথম সেকশনে থাকবে ৫০ নম্বরের কোয়ান্টিটেটিভ অ্যাপ্টিটিউট, দ্বিতীয় সেকশনে থাকবে ৫০ নম্বরের ইংলিশ কম্প্রিহেনশন এন্ড অ্যানালিটিক্যাল এবিলিটি, তৃতীয় সেকশনে থাকবে ৫০ নম্বরের জেনারেল নলেজ এন্ড কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স এবং চতুর্থ সেকশনে থাকবে ৫০ নম্বরের ম্যানেজমেন্ট অ্যাপ্টিটিউট টেস্ট বিষয়ের প্রশ্ন। পরীক্ষা হবে ২৪ মে। পরীক্ষা হবে কলকাতা, আঙ্কেলেশ্বর, পাটনা, রাঁচি, মুম্বাই সহ বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্রে। পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করতে পারবেন ৩০ এপ্রিল থেকে। চূড়ান্ত মেধাতালিকা প্রকাশ হবে ৫ জুন থেকে। কাউন্সেলিং হবে জুন মাসের শেষ থেকে। নির্বাচিত ক্যাম্পাসে প্রার্থীদের রিপোর্ট করতে হবে ১ আগস্ট।

আবেদন করবেন অনলাইনে www[ডট]applyadmission[ডট]net/fddi2020 বা http://www[ডট]fddiindia[ডট]com ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ১৫ এপ্রিলের মধ্যে। অনলাইন আবেদন করতে বসার আগে যাবতীয় প্রমাণপত্র স্ক্যান করে রাখবেন। ফি বাবদ দিতে হবে ৫০০ টাকা। জমা দেবেন অনলাইনে। প্রথমে রেজিস্ট্রেশন করে রেজিস্ট্রেশন নম্বরটি লিখে রাখবেন। এবার লগ-ইন করে যাবতীয় তথ্য সঠিকভাবে যাচাই করে সিস্টেম জেনারেটেড এপ্লিকেশন ফর্মের প্রিন্ট নিয়ে নিজের কাছে রাখবেন। পরে প্রয়োজন হবে। আরও বিস্তারিত জানতে পারবেন ওপরে বলা ওয়েবসাইটে।

পিডিএফ ডাউনলোড করুন:– https://fddiindia.com/pdf/fddi-prospectus-2020.pdf

অনলাইন আবেদন করুন:– https://applyadmission.net/fddi2020/

Related posts

Leave a Comment