amfan bangladeshMiscellaneous 

পশ্চিমবঙ্গের পর আম্ফানের তীব্রতা ছিল বাংলাদেশেও

কাজকেরিয়ার অনলাইন নিউজ ডেস্ক: ঘূর্ণিঝড়ের তান্ডব বাংলাদেশেও। আম্ফান জেরে এখনও পর্যন্ত সেদেশের ১০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। সরকারি সূত্রে জানানো হয়েছে, প্রবল ঝড় ও বৃষ্টির কারণে বাংলাদেশ উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে বিরাট ক্ষয়-ক্ষতিও হয়েছে। আবার বিভিন্ন জায়গায় নদীবাঁধ ভেঙে স্থানীয় গ্রামগুলিও প্লাবিত। ভেঙেছে বিদ্যুতের খুঁটিও। বহু গাছ উপড়ে গিয়েছে। বিদ্যুৎহীন একাধিক এলাকা।

উল্লেখ্য, ২০০৭ সালে ঘূর্ণিঝড় সিডর-এর ধাক্কায় বাংলাদেশে প্রায় ৪ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছিল। এরপর আম্ফান আছড়ে পড়লো ওই দেশে। জানা গিয়েছে, সাতক্ষীরা, পিরোজপুর, বড়গুনা, পটুয়াখালি সহ বেশ কয়েকটি জেলায় ধেয়ে আসে আম্ফান। বাংলাদেশ উপকূলবর্তী এলাকায় ঝড়ের গতিবেগ ছিল ১৬০-১৮০ কিলোমিটার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন, প্রাণহানীর ঘটনা কমাতে উপকূলবর্তী এলাকাগুলি থেকে ২০ লক্ষেরও বেশি মানুষকে আশ্রয় শিবিরে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়।

Related posts

Leave a Comment