sumi biswasMiscellaneous 

মারণ ভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কারে বাঙালিনী সুমি বিশ্বাস

কাজকেরিয়ার অনলাইন নিউজ ডেস্ক: কোভিড-১৯ প্রতিষেধক খুঁজছে গোটা বিশ্ব। বিশ্বের নানা প্রান্তের বিজ্ঞানীরা মরিয়া প্রয়াস অব্যাহত রেখেছেন। ব্রিটেনের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ও প্রতিষেধক আবিষ্কার-যুদ্ধে নেমে পড়েছে। জেনার ইনস্টিটিউটের একটি দল এই মারণ ভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কারে নেমেছে। ওই দলে রয়েছেন বাঙালিনী সুমি বিশ্বাস। সুমি ও তাঁর সহকর্মীদের সাফল্যের দিকে তাকিয়ে এখন গোটা দুনিয়া।

উল্লেখ্য, বেঙ্গালুরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাইক্রোবায়োলজি নিয়ে পড়ার পর ২০০৫ সালে ব্রিটেনে আসেন সুমি। সাফল্যের সিঁড়ি পেরিয়ে প্রথমে “লন্ডন স্কুল অফ হাইজিন অ্যান্ড ট্রপিক্যাল মেডিসিন”-এ যোগ দিয়েছিলেন। ১১ মাস সেখানে কাজ করার পর ২০০৬ সালে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ দিলেন। ক্লিনিক্যাল মেডিসিন ডি-ফিল করেছেন। এরপর ২০১৩ সালে জেনার ইনস্টিটিউটে ম্যালেরিয়ার প্রতিষেধক নিয়ে কাজ শুরু করলেন সুমি। ৩ বছরের মধ্যেই এই প্রতিষ্ঠানেই অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর হন।

জানা গিয়েছে, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমিস্ট্রি বিভাগের অধীনে একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। তার নাম স্পাইবায়োটেক। ওই প্রতিষ্ঠানের সহকারী কর্ণধার ও চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার হলেন সুমি বিশ্বাস। মূলত ম্যালেরিয়ার বিশেষজ্ঞ হিসেবে পরিচিত তিনি। ম্যালেরিয়ার প্রতিষেধক নিয়ে জেনার ইনস্টিটিউটে যে গবেষণা চলছে, ওই দলের নেতৃত্বে রয়েছেন সুমি। মানবদেহে ট্রায়াল চালানোর প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে তাঁদের বানানো প্রতিষেধক।

Related posts

Leave a Comment