shiv and pronamMiscellaneous Trending News 

শ্রাবণ মাস শিবের উদ্দেশে নিবেদিত -জেনে নিন এই মাসের তাৎপর্য

কাজকেরিয়ার অনলাইন নিউজ ডেস্ক:১৮ জুলাই থেকে শ্রাবণ মাস শুরু। হিন্দু ধর্মে এই মাসের একটি বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে। প্রচলিত বা কথিত রয়েছে, শ্রাবণ মাস হল ভগবান শিবের উদ্দেশে নিবেদিত। এই মাসে ৪টি সোমবারে আয়োজিত হয়ে থাকে বিশেষ পূজা। যা “শ্রাবণ-সোমবার ব্রত” নামে পরিচিত। পণ্ডিত ও আচার্য মতে,পূর্ণিমা তিথিতে শ্রবণা নক্ষত্রের সমাবেশ ঘটে। ওই সময় থেকেই শুরু হয়ে থাকে শ্রাবণ মাস।

১৮ জুলাই থেকে শ্রাবণ মাস শুরু হয়ে শেষ হবে ১৭আগস্ট। শ্রাবণ শিবের প্রিয় মাস হিসাবে চিহ্নিত করা হয় । বিশেষত বিবাহিত মহিলারা শ্রাবণ সোমবারের উপবাস করে থাকেন। এটি করার লক্ষ্য হচ্ছে- শিবের কাছ থেকে সৌভাগ্য প্রার্থনা করা। পণ্ডিত ও আচার্য মতে ও প্রাচীনকাল থেকে কথিত রয়েছে, অবিবাহিতারা এই মাসে উপবাস রাখলে ও মহাদেবের পুজো করলে সাংসারিক দিক শুভ হয়। স্বামী বা জীবনসঙ্গী ও সাংসারিক সুখ-সম্মৃদ্ধি বাড়ে। এবার শ্রাবণ মাসের ৫টি সোমবার পড়েছে। ইংরিজি মাসের তারিখগুলি হল- ১৯ জুলাই, ২৬ জুলাই, ২ অগাস্ট, ৯ অগাস্ট ও ১৬ অগাস্ট ২০২১।

পণ্ডিত ও আচার্য মতে ও প্রচলিত রয়েছে,শ্রাবণ মাসের শুরুতে দেবাসুরের প্রয়াসে শুরু হয়েছিল সমুদ্রমন্থনের প্রচেষ্টা । মন্থন চলাকালীন ক্ষীরসমুদ্র উত্তাল হয়ে উঠে। ওই সময় সমুদ্রের তলদেশ ভেদ করে উঠে এসেছিল মহাগরল কালকূট। ওই বিষের স্পর্শে সৃষ্টি বিঘ্নিত হতে থাকে । সৃষ্টি ও জীবনকে রক্ষা করার তাগিদে কালকূট পান করেছিলেন ভগবান শিব।

এ বিষয়ে আরও আলোচিত যে, মাতা পার্বতী ওই সময় হাত দিয়ে তাঁর কণ্ঠ চেপে ধরেছিলেন। বিষ সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়তে পারেনি,গলায় আটকে গিয়েছিল। সেই বিষের প্রভাবে শিবের কণ্ঠদেশ নীলবর্ণ হয়ে যায়। সেই থেকে নীলকণ্ঠ নামে পরিচিত হন শিব । সেই বিষ প্রশমনের জন্য দেবতারা সমুদ্রের জল এনে শরীর শান্ত করেছিলেন। সেই প্রচলিত ঘটনা মেনে আজও শ্রাবণ মাসের সোমবারে ভক্তরা বাঁকে করে গঙ্গাজল নিয়ে গিয়ে শিবমন্দিরে পুজো করেন।

আবার শিবের অন্য নাম ভোলানাথ। অল্পেই সন্তুষ্ট হন শিব ঠাকুর। জল ও একটি বেলপাতা নিবেদন করলেই শিব প্রসন্ন হন বলে ধারণা। এই শ্রাবণ মাসের সোমবারে স্নান করে শিব ও পার্বতীকে পুজোর উপকরণ অর্পণ করলেই মনোবাসনা পূর্ণ হয় বলে ধারণা প্রচলিত রয়েছে।

Related posts

Leave a Comment