bengali jatra 2Miscellaneous 

যাত্রাশিল্পীদের ভবিষ্যৎ নিয়ে এখন ঘোরতর উদ্বেগ

কাজকেরিয়ার অনলাইন নিউজ ডেস্ক: করোনার আবহে যাত্রাপালার করুণ দশা। নায়ক, নায়িকা, অভিনেত্রীদের দুর্দশা বাড়ছে। যাত্রার সিজনটা এবছরের মতো হাতছাড়া হয়ে গেল বলে মনে করছেন যাত্রাশিল্পীরা। জানা গিয়েছে, ছোট, বড় মিলিয়ে রাজ্যে ৪০টিরও বেশি যাত্রাদল রয়েছে। একসময় টলিউডের নামী মুখদের অনেকেই যাত্রা জগতে এসেছিলেন। নতুন প্রজন্মের কাছেও যাত্রার উৎসাহ বাড়ছিল।

বর্তমান সরকারের আমলে যাত্রার জন্য বিভিন্ন উদ্যোগও নেওয়া হয়েছে। আকস্মিক করোনার থাবায় রীতিমতো কাবু করেছে যাত্রাশিল্পীদেরও। গ্রামীণ এলাকায় হাজারে হাজারে মানুষ ভিড় জমাতেন যাত্রাপালা দেখার জন্য। মেদিনীপুর, মুর্শিদাবাদ, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, উত্তর ২৪ পরগনা, নদিয়া সহ বিভিন্ন জেলায় যাত্রার রমরমা বাজার ছিল। ভাঁটা পড়লেও গ্রামাঞ্চলে যাত্রাপালা দেখার উৎসাহী মানুষের সংখ্যাও কম নেই। শহরের বুকে বাগবাজারের মাঠ, দমদম, বারাসাত ও সল্টলেকেও যাত্রার আসর কমবেশি জমেছে।

যাত্রাকে কেন্দ্র করেই গড়ে ওঠা শিল্পীদের জীবন এখন দুর্বিসহ। করোনার আঘাতে চিৎপুরের ছবিটা একেবারেই বদলে গিয়েছে। করোনার পরিস্থিতি কাটলেও কোনও প্রযোজক আর যাত্রা করবেন কিনা তা নিয়ে সন্দেহ বেড়েছে। আর মানুষ করোনার ভয়ে ভিড় করে যাত্রা দেখতে আসবেন কিনা, তা নিয়েও সংশয় তৈরি হয়েছে। যাত্রার সঙ্গে জড়িত শিল্পীদের ভবিষ্যৎ নিয়ে এখন ঘোরতর উদ্বেগ।

Related posts

Leave a Comment