poor amfanMiscellaneous 

মহাসঙ্কটে বাংলা, বঙ্গের বিপর্যয়ে সাহায্যের আহ্বান

কাজকেরিয়ার অনলাইন নিউজ ডেস্ক: বাংলা এখন মহাসঙ্কটে। আম্ফানের পরবর্তী পর্যায়ে আরও ভয়াবহ পরিস্থিতি। জনজীবন বিপর্যস্ত ও লন্ডভন্ড। পরিস্থিতি সামলাতে সবার ঐকান্তিক সহযোগিতার প্রয়োজন। কলকাতা সহ ৭ জেলায় ভয়াবহ ক্ষতি। উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা সহ সুন্দরবন এলাকা একেবারে ধ্বংসস্তূপে। গবেষক ও বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এখানকার ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে ঘূর্ণিঝড় এই ব-দ্বীপ অঞ্চলে আঘাত করে।

এককথায় বলা যেতে পারে, সমগ্র বাংলাকে আঁচল বিছিয়ে রক্ষা করছে সুন্দরবনের ম্যানগ্রোভ অরণ্য। এখন সুন্দরবন শুধু বন নয়, কয়েক লক্ষ মানুষের বসতভূমিও। আয়লা, বুলবুল, আম্ফানের মতো পরপর ঘূর্ণিঝড় সুন্দরবনের গ্রামগুলিকে ধ্বংস করে দিয়েছে। ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে বাঁধ ভেঙে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে জনজীবন ও কৃষিক্ষেত্রের। ১৮৫ কিলোমিটার গতির আম্ফান ধাক্কায় এবার মানুষের মৃত্যু ঠেকানো সম্ভব হয়েছে। তবে রক্ষা করা যায়নি ব্যাপক ক্ষতি। এর পরবর্তী পর্যায়ে আরও বিপদ আসছে সুন্দরবনবাসীদের সামনে।

অভাব, অনটন আর বাঁচার লড়াই। সুন্দরবনের মানুষ যেন দুর্যোগ নিয়ে বাঁচা শিখে নিয়েছে। বুলবুলের তাণ্ডবে ৭৫ শতাংশ গাছ নিশ্চিহ্ন হয়েছিল সুন্দরবনে। এবার আম্ফানের ভয়াবহতা আরও বেশি। কোথাও কোথাও গ্রামবাসীদের কাছে ত্রাণ সামগ্রী পর্যন্ত পৌঁছচ্ছে না। করোনা সংক্রমণের ভয়ে ব্যাহত হচ্ছে অনেক জায়গার ত্রাণ বন্টন।

বঙ্গের এই বিপর্যয়ে দেশের সীমানা ছাড়িয়ে বিদেশে বসবাসকারী বাঙালিদের সাহায্যের বার্তা দেওয়াটা জরুরি হয়ে পড়েছে। সবাইমিলে পাশে দাঁড়ান। যাঁরা বাংলাকে ভালবাসেন তাঁরা উদারহস্তে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিন। এটাই আমাদের প্ৰাৰ্থনা।

Related posts

Leave a Comment