Betni RiverMiscellaneous 

ক্ষোভ বেড়ে চলেছে আশ্রয়হীন গ্রামের বাসিন্দাদের

কাজকেরিয়ার অনলাইন নিউজ ডেস্ক : বহু গ্রাম প্লাবিত। প্লাবিত গ্রামে নেই ত্রাণ, বেড়ে চলেছে ক্ষোভ। সূত্রের খবর, “আম্ফান”-এর তাণ্ডবে বেতনী নদীর বাঁধ ভেঙে প্লাবিত সন্দেশখালি-১ নম্বর ব্লকের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। স্থানীয় সূত্রে অভিযোগ, আম্ফান বিপর্যয়ের পরও দেখা পাওয়া যাচ্ছে না সরকারি কোনও আধিকারিকদের। এমনকী স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্যদেরও দেখা মিলছে না। এই প্রতিকূল পরিস্থিতিতেও ত্রাণ পাওয়া যাচ্ছে না। জলমগ্ন বাড়ির বাসিন্দারা অন্যের বাড়িতে বা স্কুলভবনে আশ্রয় নিয়েছেন বলে স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে। বিধ্বস্ত পরিস্থিতির মধ্যে ত্রাণ না-পেয়ে ক্ষোভ বেড়ে চলেছে আশ্রয়হীন গ্রামের বাসিন্দাদের। এক্ষেত্রে বাসিন্দাদের আরও অভিযোগ, এলাকায় দুর্বল নদীবাঁধ মেরামতির কোনও উদ্যোগ গ্রহণ করেনি প্রশাসন। স্থানীয় প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, এলাকার মানুষের জন্য রান্না করা খাবারের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এলাকার দুর্গত মানুষদের কাছে রান্না করা খাবার পৌঁছে দেওয়া হবে। সন্দেশখালির মেটিয়াখালি গ্রামের গোটা এলাকা জলমগ্ন। বেশ কিছু বাড়ি ডুবে রয়েছে জলের তলায়। বহু মাটির বাড়ি ভেঙে গিয়েছে। প্রশাসনিকভাবে এলাকায় ত্রাণ পাঠানো হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। এক্ষেত্রেও স্থানীয়দের অভিযোগ, কোনও ত্রাণ পৌঁছায়নি। বসিরহাট-ন্যাজাট রোডের উপর দিয়েও জলের স্রোত বয়ে চলেছে।

Related posts

Leave a Comment