Amphan Effect-7Miscellaneous 

গাছ বাঁচাতে সাফল্য ইঞ্জিনিয়ারের

কাজকেরিয়ার অনলাইন নিউজ ডেস্ক : “আম্ফান”-এ উপড়ে যাওয়া গাছ বাঁচাতে ডাক আসছে বিভিন্ন জায়গা থেকে। যাদবপুরের প্রিন্টিং শাখার ইঞ্জিনিয়ার অর্জন বসু রায় রীতিমতো নজির গড়েছেন। “আম্ফান” বিপর্যয়ের পর তাঁর তাগিদ গাছ বাঁচানোর। গাছ প্রতিস্থাপনে তাঁর জুড়ি মেলা ভার। সূত্রের খবর অনুযায়ী জানা গিয়েছে, ৭ বছরে পাঁচশো-র বেশি গাছ লাগিয়ে সাফল্য পেয়েছেন তিনি। উপড়ে যাওয়া গাছ বাঁচাতে কলকাতা শহরের বিভিন্ন প্রান্তে ছুটছেন তিনি।

উপড়ে যাওয়া গাছকে নতুন প্রাণ দিচ্ছেন অর্জন বসু রায়। এই প্রতিস্থাপন কীভাবে সম্ভব হচ্ছে সে প্রসঙ্গে তাঁর পরামর্শ- প্রাথমিকভাবে মাটির গভীর পর্যন্ত গর্ত খুঁড়ে গাছটিকে ক্রেন দিয়ে তুলতে হয়। শিকড়ে ছত্রাক বা উইপোকা থাকলে তাকে মারাটা জরুরি। এক্ষেত্রে ডালপালা ছেঁটে গাছের ওজন কমিয়ে ফেলতে হবে। এই গাছ বসানোর পর ৬ মাস পর্যন্ত পর্যবেক্ষণে রাখা দরকার। শিকড় বেরনোর পর গাছে হরমোন প্রয়োগ করতে হয়। এ বিষয়ে তাঁর আরও পরামর্শ- ৬ মাসের মধ্যে গাছের কোনও ডালপালা কাটা যাবে না। প্রতিস্থাপনের পর গাছ স্বাভাবিক হতে ২ বছর সময় লাগবে।

Related posts

Leave a Comment