ISRO venus missionMiscellaneous 

২০২৫ সালে ইসরোর শুক্র মিশনে ফ্রান্সেরও সামিল হওয়ার কথা

কাজ কেরিয়ার অন লাইন নিউজ ডেস্কঃ ফ্রান্সের মহাকাশ সংস্থা সিএনইএস বলেছে যে, ইসরো ২০২৫ সালে শুক্র গ্রহ সম্পর্কিত মিশনটিতে সামিল হবে। এই প্রথম ভারতের অনুসন্ধান মিশনে কোনও ফরাসি সরঞ্জাম ব্যবহার করা হবে। সিএনইএস এক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে, ইসরোর অনুরোধ প্রস্তাবের পর মিশনের জন্য রাশিয়ান মহাকাশ সংস্থা ‘রসকোসমাস’ এবং ফরাসি জাতীয় বৈজ্ঞানিক গবেষণা কেন্দ্র সিএনআরএস-এর অন্তর্গত ফরাসি গবেষণা কেন্দ্র ‘লওটমোস’-এর দ্বারা যৌথভাবে বিকাশ করা ‘ভাইরাল’ (ভেনাস ইনফ্রারেড অ্যাটমোস্ফিয়ারিক গ্যাসেজ লিঙ্কার) ডিভাইস নির্বাচন করা হয়েছে।

ইসরো চেয়ারম্যান কে সিভান এবং সিএনইএসের সভাপতি জিন ওয়েভেস লে গাল একে অপরের সাথে আলোচনা করে মহাকাশে ভারত ও ফ্রান্সের মধ্যে সহযোগিতার ক্ষেত্রগুলি পর্যালোচনা করেছেন। সিএনইএস এক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে, ফ্রান্স ২০২৫ সালে উদ্বোধনের জন্য নির্ধারিত মহাকাশ অনুসন্ধান অঞ্চলে শুক্র গ্রহে ইসরো-র মিশনে যোগ দেবে। সিএনইএস ফরাসী যোগদানের প্রস্তুতি ও সমন্নয় সাধন করবে। এই প্রথম ভারতের অনুসন্ধান মিশনে কোনও ফরাসি সরঞ্জাম ব্যবহার করা হবে। তবে এ বিষয়ে ইসরোর পক্ষ থেকে কোনও বিবৃতি জারি করা হয়নি।

শুক্রের বায়ুমণ্ডলে কার্বন ডাই অক্সাইডের আধিক্য রয়েছে। একটি অনুমান অনুসারে এটি ৯৬ শতাংশ পর্যন্ত হতে পারে। শুধু এটাই নয়, শুক্রের উপর বায়ুমণ্ডলীয় চাপ পৃথিবীর চেয়ে ৯০ গুণ বেশি বলে অনুমান করা হয়। আকারের দিক থেকে শুক্র পৃথিবীর সাথে বেশ মিল রয়েছে। তবে সূর্যের সান্নিধ্যের কারণে এর তাপমাত্রা পৃথিবীর চেয়ে বেশি। এটি চন্দ্রের পরে আকাশে সর্বাধিক আলোকিত গ্রহ।

Related posts

Leave a Comment