coronaMiscellaneous 

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেশি সংক্রমিত শিশুরা

কাজকেরিয়ার অন লাইন নিউস ডেস্কঃ করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে শিশুদের সংক্রমণের হার অনেক বেশি, স্বাস্থ্য মন্ত্রকের এক ভয়াবহ প্রতিবেদনে এমনটাই জানা গিয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ লক্ষ ১৫ হাজারেরও বেশি মানুষ। পরিস্থিতি এতটাই ভয়াবহ যে, দেশের একাধিক রাজ্য আবারও লকডাউনের পথে হাঁটতে চলেছে। ইতিমধ্যে লকডাউন ফিরেছে পাঞ্জাব ও মহারাষ্ট্রে। তবে,করোনার ক্ষেত্রে তাৎপর্যপূর্ণ তা হ’ল, শিশুদেরকে প্রভাবিত করছে বেশি করে। করোনা প্রথম যখন চীন থেকে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছিল তখন এর প্রভাব বয়স্কদের মধ্যে বেশি ছিল। তবে এই সময়ে শিশু এবং তরুণদের মধ্যে করোনার সংক্রমণের হার অনেক বেশি। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের প্রতিবেদন সামনে এসেছে, যা অভিভাবকদের মধ্যে চিন্তা বাড়িয়ে চলেছে। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মার্চ থেকে এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহের মধ্যে ৭৯ হাজার ৬৮৮ জন শিশু করোনায় আক্রান্ত হয়েছিল। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের নির্দেশিকা অনুসারে, বাচ্চাদের জন্য এখনই করোনার টিকা দেওয়ার কোনও ব্যবস্থা করা হয়নি।

যদিও অ্যাস্ট্রাজেনেকা শিশুদের জন্য একটি ভ্যাকসিন তৈরি করেছিল, তবে এর পরীক্ষাগুলি সফল হয়নি। শিশুদের শরীরে প্রবেশের পরে রক্ত ​​জমাট বাঁধার ফলে ইউরোপীয় দেশগুলিতে সাত জনেরও বেশি শিশু মারা যায়। মন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে, ১ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিলের মধ্যে, একমাত্র মহারাষ্ট্রে ৬০ হাজার ৬৮৪ জন করোনা ভাইরাস দ্বারা আক্রান্ত হয়েছিল, যার মধ্যে ৯ হাজার ৮৮২ জন পাঁচ বছরের কম বয়সী ছিল। ছত্তিশগড়ে ৫ হাজার ৯৪০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে, যাদের মধ্যে ৯২২ জন বছর পাঁচ বছরের কম বয়সী। আবার কর্ণাটকে ৭হাজার ৩২৭জন আক্রান্ত হয়েছে, যাদের মধ্যে ৮৭১ জন পাঁচ বছরের কম বয়সী। উত্তরপ্রদেশে ৩ হাজার ৪ জন করোনার সংক্রমণ ধরা পড়েছে, যাদের মধ্যে ৪৮১ জন পাঁচ বছরের কম বয়সী। সংখ্যাটি দিল্লিতেও কম নয়। রাজধানীতে ২ হাজার ৮৮৩ জন শিশু সংক্রামিত, তাদের মধ্যে ৪১১ জন পাঁচ বছরেরও কম বয়সী।

Related posts

Leave a Comment