Election-3Miscellaneous 

কমিশনের নির্দেশে প্রার্থীদের খরচের বিধি

কাজকেরিয়ার অনলাইন নিউজ ডেস্ক : নির্বাচন কমিশনের নির্দেশ- প্রার্থীদের খরচের ক্ষমতা বাড়িয়ে ৩০ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা করা হলেও ভোটের সময় সর্বাধিক ১০ হাজার টাকা সঙ্গে নিয়ে যাতায়াত করতে পারবেন। এক্ষেত্রে কোনও কাগজপত্র প্রয়োজন হবে না। এ বিষয়ে আরও জানানো হয়েছে, তার বেশি অর্থ হলেই উপযুক্ত নথি থাকা চাই প্রার্থীর কাছে। অন্যদিকে ভোটে অবৈধ টাকা এবং মাদক দ্রব্যের ব্যবহার রোখার জন্য বিশেষ নজর থাকছে।

কমিশন সূত্রে আরও জানা যায়, গত লোকসভা নির্বাচনে খরচের উপর বাড়তি নজরদারি ছিল। ওই নির্বাচনে ১১৫ কোটি টাকার কিছু বেশি মূল্যের টাকা, সোনা ও রুপো উদ্ধারও হয়। এক্ষেত্রে প্রায় ৬৫ কোটি টাকা নগদ উদ্ধার হয়েছিল। পাশাপাশি ১০০ কোটি টাকার কিছু বেশি মূল্যের বে-আইনি মদও বাজেয়াপ্ত হয়েছিল। বাংলার বিধানসভা নির্বাচনেও এসব রোখার জন্য নাকা-ফ্লাইং স্কোয়াড প্রভৃতির পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ করা যায়, প্রথম দফায় বঙ্গে পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া ও বাঁকুড়ার ৩০টি আসনে নির্বাচন হবে। দ্বিতীয় দফায় দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং বাঁকুড়ার ৩০টি আসনে ভোট হবে। কমিশন সূত্রে আরও জানা যায়, এই সব পদক্ষেপে কমিশনের কড়া মনোভাবই প্রতিফলিত হচ্ছে।

ভোট নিরাপত্তার তাগিদে ইতিমধ্যেই ১২৫ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী এসেছে পশ্চিমবঙ্গে। তৎপরতাও শুরু করেছেন পুলিশ পর্যবেক্ষকেরা। মোটামুটি স্পষ্টভাবে জানানো হয়েছে প্রার্থীদের খরচের বিধি। একজন প্রার্থী ভোটে ৩০ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা খরচ করতে পারবেন। একসঙ্গে সর্বাধিক ১০ হাজার টাকা সঙ্গে রাখা যাবে ভোটের সময়ে। ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত নগদে নথি প্রয়োজন হবে না।

খবরটি পড়ে ভাল লাগলে লাইক-কমেন্ট ও শেয়ার করে পাশে থাকবেন।

Related posts

Leave a Comment