heavy rain and east burdwanMiscellaneous Trending News 

মরশুমের প্রথম কালবৈশাখীতে আম-সবজির ক্ষতি পূর্ব বর্ধমানে

কাজকেরিয়ার অনলাইন নিউজ ডেস্ক: মরশুমের প্রথম কালবৈশাখী। এর জেরেই এলোমেলো পূর্ব বর্ধমান সহ কয়েকটি জেলা। দীর্ঘক্ষণ শিলাবৃষ্টিও হয়। স্থানীয় সূত্রের খবর,পূর্ব বর্ধমান জেলায় কাল মুষলধারে বৃষ্টির সঙ্গে চলে শিলাবৃষ্টিও। গ্রীষ্মের দাবদাহের মধ্যে মরশুমের প্রথম কালবৈশাখীর দেখা মিলল এই জেলায়। এমনকী জেলা জুড়েই রবিবার বিকালে শিলাবৃষ্টি হয়েছে। সকাল থেকেই ভ্যাপসা গরম ছিল। দুপুরের পর আকাশে মেঘ জমতে থাকে। বিকেলে কালো মেঘে আকাশ ঢাকে। এরপর শুরু হয় মুষলধারে বৃষ্টি। কিছুক্ষণ ধরে শিলাবৃষ্টিও চলে। বর্ধমান শহর ছাড়াও আউসগ্রাম, ভাতার, গলসি ও মন্তেশ্বরের বিস্তীর্ণ এলাকায় শিলাবৃষ্টি হয়েছে।

অন্যদিকে গরম কিছুটা কমায় স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন পূর্ব বর্ধমান জেলার বাসিন্দারা। তবে বৃষ্টিতে নাকাল হন বহু মানুষ । চৈত্র সেল এর বাজারেও বিঘ্ন ঘটে। নির্বাচনী প্রচারও বন্ধ হয়ে যায় ভোট প্রার্থীদের । এই বৃষ্টিতে অনেকেই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললেও চাষের ক্ষতি হয়েছে এই শিলাবৃষ্টিতে,এমনটাই বলছেন কৃষকরা। শিলা বৃষ্টির ফলে সবজি চাষেরও ক্ষতি হয়েছে। শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতি হয়েছে আমের ফলনেরও।

উল্লেখ করা যায়,আবহাওয়া দপ্তরের বৃষ্টির পূর্বাভাস ছিল। শহর বর্ধমান, আউশগ্রাম, গুসকরা সহ পূর্ব বর্ধমানের বেশ কিছু এলাকায় শুরু হয় শিলাবৃষ্টি। শিলাবৃষ্টির জেরে বোরো ও আমচাষের ক্ষতির আশঙ্কা করছেন স্থানীয় কৃষকরা। হঠাৎ এই বৃষ্টির ফলে ক্ষতির মুখে স্থানীয় ছোট ব্যবসায়ীরাও। এক্ষেত্রে তাঁদের বক্তব্য, এইসময় চৈত্র সেলের ভরা মরশুম। এই বৃষ্টি সেই বাজারে ক্ষতি করেছে। বৃষ্টির জেরে বর্ধমানের সেলের বাজার ছিল ফাঁকা ও মন্দা।

খবরটি পড়ে ভালো লাগলে লাইক-কমেন্ট ও শেয়ার করবেন।

Related posts

Leave a Comment