Coding EducationMiscellaneous 

ভবিষ্যতে চাকরির ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা কোডিং শিক্ষার

কাজকেরিয়ার অনলাইন নিউজ ডেস্ক : গুরুত্ব বাড়ছে শিশুদের কোডিং শিক্ষার। সূত্রের খবর, কোডিং শিক্ষার অ্যাপ বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন বিপুল পরিমাণে বেড়ে গিয়েছে। এমনকী তৃতীয় বা চতুর্থ শ্রেণিতে পড়াশোনা করছে, তাদেরও কোডিং শেখানোর বিষয়ে উৎসাহ দিচ্ছে অ্যাপ বা প্রতিষ্ঠানগুলি। কোডিং-শিক্ষা নিয়ে মাতামাতি বেড়েছে। ছোট শিশুদের কোডিং শেখানোর ব্যাপারে উৎসাহ দেওয়া হচ্ছে। দেখা গিয়েছে, আমাদের জীবনে প্রযুক্তির প্রয়োজনীয়তা গত এক দশকে বহুগুণ বেড়ে গিয়েছে।

সূত্রের আরও খবর, কম্পিউটার বা ইলেকট্রনিক ডিভাইস ছাড়া আমাদের জীবনের কিছুই ভাবতে পারি না আমরা। লকডাউনের ফলে এই প্রয়োজনীয়তার বিষয়টা এখন নির্ভরতার জায়গায় চলে গিয়েছে। প্রযুক্তি আমাদের জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে প্রবেশ করেছে। অনলাইন জীবনের আয়তনও বাড়ছে। একটা সময় আমাদের সময় কাটানোর জন্য বাড়িতে নানা ধরনের বোর্ড গেম খেলা হত। এখন সেসব খুঁজে পাওয়া যায় না। বদলে এসেছে অনলাইন গেমস বা অফলাইন মোবাইল গেম।

বিনোদনের জন্য সিনেমা দেখার ক্ষেত্রেও বদল এসেছে। টেলিভিশনের গুরুত্ব কমে গিয়ে তার পরিবর্তে এসেছে ওটিটি প্ল্যাটফর্ম। এর আগে ইন্টারনেট ব্যবহার করে বিদেশে ফোন করার একমাত্র মাধ্যম ছিল স্কাইপের মতো একটি মাত্র সফটওয়্যার। এখন পৃথিবীর কোনও প্রান্তে ফোন করাটা কোনও ব্যাপার নয়। যে-কোনও ইন্টারনেট মেসেজিং অ্যাপ ব্যবহার করেই ফোন করা যায়। দেশ-বিদেশের যে-কোনও প্রান্তে এটি করা সম্ভব। আমাদের ডিজিটাল জীবন অনেকটাই বড় হয়ে গিয়েছে। এরফলে বদল হচ্ছে চাকরির সংজ্ঞা। নতুন চাকরির পদ তৈরি হচ্ছে। যা আগে সম্ভব ছিল না। ভবিষ্যতে চাকরির ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা নিতে চলেছে কোডিং শিক্ষা।

Related posts

Leave a Comment