High Court-1Miscellaneous 

আদালতের নির্দেশ শুধু কমিশনকেই

কাজকেরিয়ার অনলাইন নিউজ ডেস্ক: করোনার চোখরাঙানিতে নির্বাচন কমিশনকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন মহল থেকে নানা অভিযোগ উঠেছে। করোনার পরিস্থিতিতে কলকাতা হাইকোর্ট কেবল নির্দেশিকা জারি করে ‘দায় এড়ানো’-র অভিযোগে কমিশনকে বরখাস্তও করেন। কমিশন করোনা-কালে নির্বাচনে কী করণীয় সে সম্পর্কে একটি গাইডলাইন দিয়েছিল। এটি মানা না হলে কী হবে তা কোথাও পরিষ্কারভাবে বলা হয়নি। সমস্ত দলের মিছিল ও সমাবেশে উপচে পড়া ভিড় লক্ষ্য করা গিয়েছে। করোনার-বিধিও মান্য করা হয়নি। সে কারণেই কমিশনকে দায়ী করা হচ্ছে। করোনার পরিস্থিতির কারণে, নির্বাচনে জনস্বাস্থ্য কীভাবে সুরক্ষিত হবে তা নিয়ে হাইকোর্টে একাধিক জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়েছে। একসাথে শুনানিও চলছে।

সাম্প্রতিক শুনানিতে প্রধান বিচারপতি টি বি রাধাকৃষ্ণান ও বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ নির্বাচন কমিশনের ভূমিকার বিষয়ে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে। প্রধান বিচারপতি সম্প্রতি করোনার সময় নির্বাচনকে জরুরি অবস্থা হিসাবে বিবেচনা করে কমিশনকে একটি হলফনামা দিতে বলেছেন। এখন আবার এই মামলার শুনানি হবে। আইনজীবীরা মনে করেন, এই মামলার রায় ঘোষণা হতে পারে। মামলার সাথে যুক্ত আইনজীবী সূত্রে জানা গিয়েছে, কমিশনের ভূমিকার সমালোচনা করার সময় প্রাক্তন নির্বাচন কমিশনার টি এন সেশানের নামও প্রধান বিচারপতির মুখে এসেছে।

প্রধান বিচারপতিকে বলতে শোনা যায় যে, কমিশনের ভূমিকা ভুলে গেলে আদালত এটি স্মরণ করিয়ে দেবে। অন্যান্য প্রসিকিউটররা বলেছেন, কমিশনকে প্রয়োজনে দ্রুত প্রতিক্রিয়া দল বা রাপিড অ্যাকশন ফোর্সের সহায়তায় নিয়মগুলি কার্যকর করতে বলা হয়েছিল। আদালতের এই আদেশে অনেকেই আশার আলো দেখছেন। একই সঙ্গে, তারা এও মনে করেন কমিশনের ‘ব্যর্থতা’ এর আগে যদি নজর দেওয়া হত তবে বিপদ অনেকটা এড়ানো যেত। তবে রাজনৈতিক দলগুলোর ভূমিকা নিয়েও মানুষ ক্ষুব্ধ। মামলার শুনানি শুরুর দিকে রাজনৈতিক দলগুলোর বিষয়টি উঠে আসে। দলগুলোর কোন পরামর্শ না থাকায় আদালতে শুনানি করা যায়নি।

এ প্রসঙ্গে তাঁর মন্তব্য, ওই সময় বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় জানতে চেয়েছিলেন, করোনার বিধি বাস্তবায়নে কমিশন কী পদক্ষেপ নিয়েছে? কারও বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে কিনা তা নিয়ে প্রিয়াঙ্কা চৌধুরীসহ কমিশনের আইনজীবীদের বক্তব্যে সন্তুষ্ট না ডিভিশন বেঞ্চ। এক্ষেত্রে তিনি বলেছিলেন, কমিশনের নির্দেশিকা রয়েছে, ব্যবস্থা নেওয়ার ক্ষমতাও রয়েছে। বাস্তবিকক্ষেত্রে সেই শক্তির কোনও প্রতিচ্ছবি বা এখনও দেখা যায়নি।

Related posts

Leave a Comment